| রাত ১২:৩৮ - রবিবার - ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ৬ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ১৪ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

নান্দাইলে মাদ্রাসার ছাত্র খুন ঃ আহত-০৪

 

ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি ঃ ৪ অক্টোবর ২০১৫, রবিবার,

ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার আচারগাঁও ইউনিয়নের ঝাউগড়া টলার কুড় নামক স’ানে ঈদগাহ মাঠের কর্তৃত্ব নিয়ে এক সংষর্ঘে শুক্রবার (০২ অক্টোবর) রাত আনুমানিক ১০ টার দিকে নান্দাইল উপজেলা ছাত্রলীগের সম্মানিত সদস্য শফিকুল ইসলাম মাসুদের ছোট ভাই আচারগাঁও মাদ্রাসার ফাযিল দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আশরাফুল ইসলাম ফরিদ (২০) খুন হয়েছে।সংষর্ঘে মারাত্নক আহত ফরিদকে প্রথমে নান্দাইল ও পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল হাসপাতালে নেয়া হলে সাথে সাথে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়। সেখানে ভোর রাত আনুমানিক ৩.৪৫ মিঃ তার মৃত্যু ঘটে।  সংষর্ঘে আহত হয়েছে আনোয়ার (২৬) রফিক (৩৫) কালাম (৪০) ও সুরম্নজ (৬০) প্রথমে আহতদের নান্দাইল হাসপাতালে আনা হয়। গুরম্নতর আহতদের মধ্যে অনোয়ার, রফিক ও কালামকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও আহত সুরম্নজ কে নান্দাইল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ঘটনার বিবরনে প্রকাশ, গত ঈদুল আজহার নামাজের পূর্বে আচারগাঁও ঝাউগড়া টলার কুড় ঈদগাহ মাঠের কমিটি পুণঃ গঠন করা হয়। সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত নিহত ফরিদের বড় ভাই ছাত্রলীগ নেতা মাসুদ সম্পাদক মনোনীত হয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে প্রতিপক্ষ কালাম ও তার অনুসারীরা। এরপর থেকেই দু’পক্ষের মধ্যে বৈরী সম্পর্ক বিরাজমান ছিল বলে এলাকাবাসী জানায়। তার প্রতিফলন ঘটে শুক্রবার রাত আনুমানিক ১০ টায়। রবিবার সকাল ১০ টায় নিহত ফরিদের লাশ জানাযা শেষে পারিবারিক কবর স’ানে দাফন করা হয়।
এদিকে নিহত ফরিদের বড় ভাই ছাত্রলীগ নেতা মাসুদ বাদী হয়ে ১০ জনের বিদ্ধে নান্দাইল মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছে।। এলাকায় থমথমে ভাব বিরাজ করছে।#

সর্বশেষ আপডেটঃ ৭:০০ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ০৪, ২০১৫