| বিকাল ৫:৪৭ - সোমবার - ২২শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ৭ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - ১৫ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

করিমগঞ্জে ছাত্রী অপহরণ ঘটনায় অটোচালককে জবাই করে হত্যা

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি, ১ অক্টোবর ২০১৫, বৃহস্পতিবার,
কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জে কলেজ ছাত্রী অপহরণকে কেন্দ্র করে এক অটোচালককে জবাই করে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। নিহতের নাম মঞ্জিল মিয়া (৫০)। তিনি করিমগঞ্জের জাফরাবাদ ইউনিয়নের জালস্নাবাদ গ্রামের মৃত মফিজ মিয়ার ছেলে। বুধবার মধ্যরাতে পার্শ্ববর্তী কাইকুরদিয়া এলাকার একটি পুকুর পাড় থেকে জবাই করা অবস’ায় মঞ্জিল মিয়াকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পথে তিনি মারা যান বলে জানা গেছে। বুধবার রাত ১১টার দিকে করিমগঞ্জের শিমুলতলা বাজার থেকে কয়েক যাত্রী গুজাদিয়া যাওয়ার জন্য মঞ্জিলের অটোরিকসাটি ভাড়া করে। কিন’ কাইকুরদিয়া এলাকায় নিয়ে মঞ্জিলকে জবাই করা হয়। পুলিশ ও প্রত্যড়্গদর্শিরা জানায়, অটোর ভেতর রক্ত পাওয়া গেছে। ফলে ধারণা করা হচ্ছে, হয়ত অটোর ভেতরই মঞ্জিলকে জবাই করে পার্শ্ববর্তী পুকুর পাড়ে ফেলে রাখে।
নিহতের স্বজনেরা জানান, একই গ্রামের আব্দুল কাদিরের কলেজ পড়-য়া মেয়ে ঈদের কয়েকদিন আগে নিহত মঞ্জিল মিয়ার ভাই বাবুল মিয়ার ছেলে সাইকুলের সঙ্গে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় মেয়ের স্বজনরা মঞ্জিলের ভাই আব্দুল হামিদ ও ভাতিজা রমজানকে ধরে নিয়ে মারধর করে। পরে মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে নিজেরাই মেয়েটিকে উদ্ধার করে। এ ব্যাপারে দায়ের করা অপহরণ মামলায় নিহত মঞ্জিল মিয়াকেও আসামি করা হয়েছিল। করিমগঞ্জ থানা সূত্রও বলছে যে, নিহতের স্বজনেরা দাবি করছেন, এই হত্যাকা-ের পেছনে মেয়ে অপহরণ ঘটনার সম্পর্ক রয়েছে। করিমগঞ্জ থানার ওসি দীপক চন্দ্র মজুমদার জানান, লাশের ময়না তদনত্ম সম্পন্ন হবার পর তার পরিবারের পড়্গ থেকে মামলা রম্নজু করা হবে।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:০৩ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ০১, ২০১৫