| রাত ১:১৪ - শুক্রবার - ৩রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ - ২০শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ১১ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি

বাল্য বিয়ে পাকুন্দিয়ায় বর ও কনের পিতার ৭দিনের কারাদণ্ড

পাকুন্দিয়া প্রতিনিধি,০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫, শুৃক্রবার:  কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় বাল্য বিয়ে দেওয়ার অভিযোগে কনের পিতা ও বর কে ৭ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৫টায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে ইউএনও মোহাম্মদ মোশারফ হোসেন খান এর নেতৃত্বে গঠিত ভ্রাম্যমাণ আদালত এ সাজা দেন।

সাজাপ্রাপ্তরা হচ্ছেন উপজেলার চন্ডিপাশা গ্রামের নুরুল ইসলাম ও বিয়ে করতে আসা বর একই উপজেলার কালটিয়া গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে মাজারুল আলম।

জানা গেছে, শুক্রবার জুমআ নামাজের পর উপজেলার চন্ডিপাশা গ্রামের নুরুল ইসলামের কন্যা ও কোদালিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থী তাহমিনা আক্তার (১৪) এর সাথে জনৈক ওই ব্যক্তির বিয়ের দিন ধার্য্য ছিল।

বাল্য বিয়ের আয়োজন চলছে জানতে পেরে ইউএনও মোহাম্মদ মোশারফ হোসেন ঘটনাস’লে গিয়ে বিয়ে বন্ধ করে দেন এবং কনের পিতা ও বরকে তার কার্যালয়ে নিয়ে আসেন। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তাদের উভয়কে ৭দিনের কারাদন্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিষ্ট্রেট ও ইউএনও মোহাম্মদ মোশারফ হোসেন খান।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ মোশারফ হোসেন খান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

 

সর্বশেষ আপডেটঃ ৭:৩৮ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ০৪, ২০১৫