| দুপুর ২:০৪ - বৃহস্পতিবার - ২রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ - ১৯শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ১০ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি

ফুলবাড়ীয়ায় পরিক্ষা কেন্দ্র পরিবর্তনের দাবীতে শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ, ভাংচুর

 

ফুলবাড়ীয়া ব্যুরো ঃ  ২৬ আগস্ট ২০১৫, বুধবার:
ময়মনসিংহের ফুলবাড়ীয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের এইচ এস সি পরিক্ষাথীরা পরিক্ষা কেন্দ্র বাতিলের দাবীতে বুধবার দুপুর ১২ টা থেকে ঘন্টাব্যাপী ফুলবাড়ীয়া ময়মনসিংহ সড়ক অবরোধ করে রাখে। কলেজের অফিস ভবনের মুল ফটক ভেঙ্গে ফেলে। প্রচন্ড গরমের মধ্যে সড়কে ঘন্টাব্যাপী অবরোধ চলাকালে দু’জন শিক্ষাথী অসুস্থ হয়ে পড়ে।
ফুলবাড়ীয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ২০১৫ সনে ৬ শতাধিক এইচ.এস.সি পরিক্ষার্থী বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা মহাবিদ্যালয় কেন্দ্রে পরিক্ষা দেয়। পরিক্ষা চলাকালীন সময়ে পরিক্ষার্থীদের সাথে দুর্ব্যবহার, নির্ধারিত সময়ের আগেই খাতা নিয়ে বের করে দেয়াসহ নানানভাবে হয়রানী করায় এ বছর কলেজ থেকে জিপিএ-৫ পায় মাত্র ৩ জন।
২০১৬ সনের এইচ.এস.সি পরিক্ষা কেন্দ্র বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা মহাবিদ্যালয় থেকে পরিবর্তন অন্যত্র করার জন্য ২০১৫ সনের পরিক্ষায় অংশ গ্রহনকারী ও ২০১৬ সনের এইচ এস সি পরিক্ষার্থীরা দুপুর ১২ টা থেকে ফুলবাড়ীয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অফিস ভবনে তালা ঝুলিয়ে আন্দোলন শুরু করে। পরে তারা ফুলবাড়ীয়-ময়মনসিংহ সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন শুরু করে। এ সময় ফুলবাড়ীয়া-ময়মনসিংহ সড়কে চলাচলকারী যানবাহন আটকা পড়ে। আটকা পড়ে দূর্নীতি দমন কমিশনের একটি গাড়ীও।
ঘন্টাব্যাপী সড়ক অবরোধের পর পুলিশ এসে পরিসি’তি নিয়ন্ত্রনে আনে। শিক্ষার্থীরা জানান, তাদের দাবী বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে।
ফুলবাড়ীয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ভাইস প্রিন্সিপাল আমজাদ হোসেন জানান, ২০১৫ সনে ৬০৫ জন এইচ.এস.সি পরিক্ষার্থী বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা মহাবিদ্যালয় কেন্দ্রে পরিক্ষায় অংশ গ্রহন করে। বিজ্ঞানে ১৭৪ জন পরিক্ষার্থীদের মধ্যে ১১২ জন, ব্যবসায় শিক্ষায় ৮৬ জনের মধ্যে ৫৬ জন পাস করে। পরিক্ষা কেন্দ্রে শিক্ষকদের আচরনগত কারনে এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে মাত্র ৩ জন।
উল্লেখ্য, ফুলবাড়ীয়া বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি জাতীয় সংসদ সদস্য আলহাজ মোসলেম উদ্দিন, আর বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা মহাবিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি এমপি পুত্র এড. ইমদাদুল হক সেলিম।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৭:৪৩ অপরাহ্ণ | আগস্ট ২৬, ২০১৫