| ভোর ৫:৪৮ - শুক্রবার - ৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ৩রা রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

টেন্ডারকে কেন্দ্র করে গফরগাঁও পৌর মেয়র ও কাউন্সিলর মুখোমুখি

 

গফরগাঁও প্রতিনিধি, : ৬ আগস্ট ২০১৫, বৃহস্পতিবার, 
ময়মনসিংহের গফরগাঁও পৌর মেয়র এ্যাডভোকেট কায়সার আহমেদ ও ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাহমুদুল হাসান সবুজ একটি টেন্ডারকে কেন্দ্র করে বিরোধে জড়িয়ে একে অপরের বিরুদ্ধে বুধবার রাতে গফরগাঁও থানায় সাধারণ ডায়েরী করেছেন।
মেয়রের জিডি সূত্রে জানা যায়, গত ২৯ আগষ্ট অনুষ্ঠিতব্য গফরগাঁও পৌরসভার একটি টেন্ডারের কাজ ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাহমুদুল হাসান সবুজের সহোদরকে দেয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করে। এতে রাজি না হওয়ায় গত বুধবার বিকেলে পৌর মেয়রের কার্যালয়ে উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি ও বাক বিতন্ডা হয়। পরে কাউন্সিলর মেয়রকে পৌরসভা জ্বালিয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে বের হয়ে যান।
অপর জিডিতে কাউন্সিলর উল্লেখ করেন, ২০১২/১৩ অর্থ বছরে পৌর সভার অধীনে বৈদ্যুতিক খুঁটি নির্মাণ, তার সংযোগ ও রোড লাইটের জন্য টেন্ডার আহবান করা হয়। কিন্ত অধ্যাবধি তা বাস্তবায়ন করা হয় নাই। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে মেয়র উত্তেজিত হয়ে বলে বেশি বাড়াবাড়ি করলে বড় ধরণের ক্ষতি সাধনসহ পৌর সভায় আসতে দিবে না বলে হুমকি দেয়। এ ঘটনায় দুজনেই থানায় সাধারণ ডায়েরী করেন।
এ ব্যাপারে কাউন্সিলর মাহমুদুল হাসান সবুজ বলেন, আগামী দুয়েক দিনের মধ্যে পৌর কাউন্সিলরদের নিয়ে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করব। মেয়র যে অভিযোগে থানায় জিডি তা অদৌ সত্য নয়।
পৌর মেয়র কায়সার আহমেদ বলেন, তার ভাইকে টেন্ডারের কাজ না দেয়ার পৌরসভা কার্যালয় ভাংচুর করে পুড়িয়ে দেয়ার হুমকি দেয়। আমি পৌরসভার কাজে এখন ঢাকায় অবস্থান করছি।
গফরগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু ওবায়দা খান জানান, পাল্টা পাল্টি জিডির ব্যাপারে এখনো তদনত্ম শুরু করা হয়নি।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৬:৩৫ অপরাহ্ণ | আগস্ট ০৬, ২০১৫