| রাত ১২:২১ - মঙ্গলবার - ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ১২ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ৩০শে সফর, ১৪৪৪ হিজরি

ময়মনসিংহে জাকাত ট্র্যাজেডি নূরানী জর্দা মালিক শামীমসহ ৮ আসামি ৩ দিনের রিমান্ডে

স্টাফ রিপোর্টার, ১২ জুলাই ২০১৫, রবিবার,
ময়মনসিংহে জাকাতের কাপড় আনতে গিয়ে পদদলিত হয়ে ২৭জনের মৃত্যুর ঘটনা মামলায় নূরানী জর্দা ফ্যাক্টরির মালিক মোহাম্মদ শামীম ও তার পুত্রসহ আট আসামির ৩ দিনের রিমান্ড মুঞ্জুর করেছে আদালত। পুলিশ ৭দিনের রিমান্ড চেয়েছিলো। রবিবার দুপুরে ময়মনসিংহের ১ নং আমলি আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আহসান হাবিবের আদালতে তাদের রিমান্ডের শুনানি অনুষ্ঠিত হলে বিচারক ৩দিনের রিমান্ড মুঞ্জুর করেন বলে আদালত সূত্রে জানা গেছে।
রিমান্ডে নেয়া মামলার আসামীরা হলেন- মালিক মোহাম্মদ শামীম (৬৫) ও তার পূত্র হেদায়েত (৩০), ফ্যাক্টরির ম্যানেজার ইকবাল হোসেন (৩৫), ইকবাল (৪০), আরমান হোসেন (৩৫), আলমগীর হোসেন (৩৪), আরশাদুল ইসলাম (৩২), ড্রাইভার পারভেজ (৩৫) ও কর্মচারী আঃ হামিদ (৩৬)।

এরআগে শনিবার দুপুরে এই আদালতেই আসামীদের শহরের অতুলচক্রবর্তী রোডের ওই নুরানী জর্দা ফ্যাক্টরির মালিক মোহাম্মদ শামীম ও তার ছেলেসহ ৮ আসামিকে সোপর্দ করা হয় । তাদের বিরুদ্ধে রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন-কারী অফিসার ও কোতোয়ালি থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মুশফিকুর রহমান। রিমান্ড শুনানির জন্য রোববার দিন ধার্য শেষে তাদের ময়মনসিংহ কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত।

গত ১০ জুলাই শুক্রবার ভোরে জাকাতের কাপড় সংগ্রহ করতে গিয়ে ময়মনসিংহ পৌরসভার সামনের নূরানী জর্দা ফ্যাক্টরি’র মালিক মোহাম্মদ শামীমের বাসার গেটে পদপিষ্ট হয়ে ২৭ জন প্রাণ হারায় । এ ঘটনায় বাড়ির মালিক শামীম ও তার পুত্র হেদায়েতসহ ৮ জনকে পুলিশ ওই সকালেই আটক করে। পরে সন্ধ্যায় কতোয়ালি মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে শামীমসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে ৩০২ ধারায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৩:০৫ অপরাহ্ণ | জুলাই ১২, ২০১৫