| সকাল ৬:০৯ - শুক্রবার - ৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ৩রা রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

শিরোপার লড়াইয়ে জকোভিচ ও ফেদেরার

অনলাইন ডেস্ক, ১২ জুলাই ২০১৫, রবিবার:

একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি। কোন অঘটন নয়। একেবারে প্রত্যাশিত ফাইনাল। র‌্যাঙ্কিংয়ের এক ও দুই নম্বর তারকা খেলোয়াড় এবারের গ্র্যান্ডস্লাম আসর উইম্বলডনের ফাইনালে। শিরোপার লড়াইয়ে আজ মুখোমুখি হবেন নোভাক জকোভিচ ও রজার ফেদেরার। শুক্রবার দুজনই নিজেদের সেমিফাইনালে জিতেছেন। নোভাক জকোভিচ ফরাসি তারকা রিচার্ড গ্যাসকেটকে হারান ৭-৬, (৭-২), ৬-৪, ৬-৪ গেমে। আর উইম্বলডনের সেমিফাইনালে না-হারার রেকর্ড অক্ষত রাখেন রজার ফেদেরার। শেষ চারে স্কটিশ অ্যান্ডি মারেকে সরাসরি সেটে ৭-৫, ৭-৫, ৬-৪ গেমে হারিয়ে অল ইংল্যান্ড ক্লাবে পুরুষ এককের ফাইনালে তিনি। গতবারও ফাইনালে খেলেছিলেন সার্বিয়ান জকোভিচ ও সুইস তারকা ফেদেরার। শিরোপার লড়াইয়ে ৫ সেটের কঠিন লড়াই শেষে হাসেন জকোভিচ। এবার তাই ফেদেরারের প্রতিশোধের সুযোগ। তবে ফর্মের তুঙ্গে থাকা জকোভিচের জন্য সাফল্যের ধারা জারি রাখার প্রত্যয়। এ নিয়ে দশমবারের মতো উইম্বলডনের ফাইনালে উঠলেন ফেদেরার। এ টুর্নামেন্টে অষ্টম শিরোপার অপেক্ষায় এ সুইস তারকা। সর্বশেষ তিনি উইম্বলডনের শিরোপা জেতেন ২০১২ সালে অ্যান্ডি মারেকে হারিয়ে। আর গতবারের মতো এবারও শেষ চারে তিনি মারেকে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছেন। এ নিয়ে সব মিলিয়ে গ্র্যান্ডস্লামের ২৬তম ফাইনালে ফেদেরারের। কারিয়ারের ১৭ গ্র্যান্ডস্লাম শিরোপার ১৬টিই ফেদেরারের এসেছে ২০০৩ থেকে ২০১০ সালের মধ্যে। তবে ২০১২ সালের উইম্বলডনের পর কোন গ্র্যান্ডস্লাম জেতা হয়নি তার। এবার শিরোপা-খরা কাটানোর সুযোগ তার সামনে। তিনি এদিন উইম্বলডনে ৭৯তম জয় আদায় করে নিয়ে ফাইনালে ওঠেন। উইম্বলডনের ইতিহাসে সর্বাধিক ৮৬ ম্যাচ জয়ের রেকর্ড জিমি কনর্সের। ফেদেরারের সামনে এখন শুধুই তিনি। উইম্বলডনে সবচেয়ে বেশি বয়সে শিরোপা জয়ের অপেক্ষায় ৩৩ বছর বয়সী ফেদেরার। ইতিমধ্যে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বয়সী হিসেবে উইম্বলডনের ফাইনালে উঠে রেকর্ডের পাতায় জায়গা করে নিয়েছেন তিনি। সবচেয়ে বেশি ৩৯ বছর বয়সে উইম্বলডনের ফাইনালে ওঠার রেকর্ড আছে কেন রসওয়েলের। তিনি ১৯৭৪ সালে এই রেকর্ড গড়েন। তবে সেবার ফাইনালে জিমি কনর্সের কাছে হেরে যান।
অন্যদিকে ক্যারিয়ারের নবম গ্র্যান্ডস্লাম শিরোপা জয়ের টার্গেটে ১৭তম বারের মতো ফাইনালে উঠলেন জকোভিচ। এবার তার লক্ষ্য উইম্বলডনে নিজের তৃতীয় শিরোপা জেতা। এর আগে ২০১১ ও ২০১৪ সালে তিনি এ শিরোপা জেতেন। সমপ্রতি দুর্দান্ত পারফর্ম দেখাচ্ছেন ২৮ বছর বয়সী জকো। শেষ ২০ গ্র্যান্ডস্লামের ১৯টিতেই সেমিফাইনালে উঠেছেন তিনি। এ বছর ৫০ ম্যাচ খেলে হেরেছেন মাত্র ৩ বার। তাছাড়া মওসুমের শুরু থেকে অস্ট্রেলিয়ান ওপেন, ইন্ডিয়ান ওয়েলস, মিয়ামি মাস্টার্স, মন্টে কার্লো ও ইতালিয়ান ওপেনের শিরোপা জিতে দুরন্ত রূপ দেখাচ্ছেন তিনি। ফেদেরার-জকোভিচ এ পর্যন্ত ৩৯ বার মুখোমুখি হয়েছেন। জয়-পরাজয়ের পাল্লা প্রায় সমান। ফেদেরারের ২০ জয়ের বিপরীতে জকোভিচের জয় ১৯। তবে গ্র্যান্ডস্লামে তারা লড়েছেন সমানে সমান। দুজনের জয়ই ৬টি করে। তবে শেষের লড়াইয়ে এগিয়ে জকোভিচ। এ বছর ইতিমধে তারা তিনবার মুখোমুখি হয়েছেন। বছরের শুরুতে দুবাইয়ের ফাইনালে জেতেন ফেদেরার। তবে এরপর ইন্ডিয়ান ওয়েলস ও রোম মাস্টার্স- দুই ফাইনালে ফেদেরারকে হারান নোভাক জকোভিচ।

সর্বশেষ আপডেটঃ ১:১৪ অপরাহ্ণ | জুলাই ১২, ২০১৫