| সন্ধ্যা ৭:৫০ - সোমবার - ১লা আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ১৭ই শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ২রা মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

আর্জেন্টিনাকে হারিয়ে চিলির ইতিহাস সৃষ্টি

অনলাইন ডেস্ক, ৫ জুলাই ২০১৫, রবিবার:

কোপা আমেরিকার ফাইনালে আর্জেন্টিনাকে হারিয়ে ইতিহাস সৃষ্টি করলো চিলি। টুর্নামেন্টের ৯৯ বছরের ইতিহাসে কোনো শিরোপা ছিল না চিলির। এর আগে চারবার ফাইনালে উঠে প্রতিবারই ব্যর্থ হয়েছে তারা। ১৯৫৫ সালে নিজেদের মাটিতে ফাইনালে উঠেছিলে চিলি। কিন্তু সেবার তাদের কাঁদিয়ে শিরোপা নিয়ে গিয়েছিল আর্জেন্টিনা। কিন্তু চিলি এবার আর সুযোগ দিল না আর্জেন্টিনাকে। শ্বাসরুদ্ধকর টাইব্রেকারে ৪-১ গোলে হারিয়ে প্রথমবরের মতো কোপা আমেরিকার শিরোপা জিতেছে তারা। এতে ৬০ বছর আগে ফাইনালে হারের মধুর প্রতিশোধ নিল স্বাগতিকরা। আজ ভোরে ম্যাচের নির্ধারিত ৯০ মিনিট গোলশূন্য ছিল। অতিরিক্ত ৩০ মিনিটেও কোনো দল গোল করতে ব্যর্থ হয়। শিরোপা নির্ধারনের জন্য তাই টাইব্রেকারের আশ্রয় নেয়া হয়। আর সেখানে চার শটের প্রতিটিতে গোল করেন চিলির খেলোয়াড়রা।  আর আর্জেন্টিনার হয়ে গোল মিস করেন গঞ্জলো হিগুয়েইন ও এভার বানেগা। এতে ১৯৯৩ সালের পর কোপা আমেরিকার শিরোপা জেতা হলো না তাদের। টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ ১৫ বার শিরোপা জিতে উরুগুয়েকেও ছোঁয়া হলো না আর্জেন্টিনার। দলের প্রাণভোমরা লিওনেল মেসিরও কোনো মেজর শিরোপা জয়ের পথ আরও লম্বা হয়ে গেল। ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ের ৩ নম্বর দল আর্জেন্টিনা। আর চিলি ১৯ নম্বর। কিন্তু এদিন শুরু থেকেই দুর্দান্ত গোছানো ফুটবল খেলে চিলি। আর্জেন্টিনা ছিল খাপছাড়া। বল দখল ও প্রতিপক্ষের গোলমুখে শট সব দিক থেকে চিলি এগিয়ে ছিল। চিলির ৫৭ শতাংশের বিপরীতে আর্জেন্টিনা নিজেদের দখলে বল রাখে ৪৩ শতাংশ।

সর্বশেষ আপডেটঃ ১:২৭ অপরাহ্ণ | জুলাই ০৫, ২০১৫