| সকাল ৮:৩৪ - রবিবার - ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ - ১২ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ - ১৪ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

ময়মনসিংহে সরকারী গুদামে পচা চাল মজুত ! ক্রয় দেখিয়ে বৈধতা দেয়ার পাঁয়তারা

স্টাফ রিপোর্টার, ২৯ জুন ২০১৫, সোমবার: 
খাদ্য অধিদপ্তরের অধীন ময়মনসিংহের খাগডহরে কেন্দ্রীয় খাদ্য গুদামে (সিএসডি) একটি চক্র খাওয়ার অযোগ্য ৩০০ টন চাল মজুত করে রেখেছে এবং ক্রয় দেখিয়ে ওই চাল পুনরায় গুদামে প্রবেশের ষড়যন্ত্র চলছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক প্রয়োজনীয় ব্যবস’া নিচ্ছেন বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়। ময়মনসিংহের বিভিন্ন গুদামে বিভিন্ন সিন্ডিকেট চক্র দীর্ঘদিন ধরে সরকারের ধান-চাল ক্রয়নীতির আওতায় সরকারী খাদ্য গুদামে খাওয়ার অযোগ্য চাল প্রবেশ করার অভিযোগ উঠেছে।

ময়মনসিংহের জেলা প্রশাসক ও দুর্নীতি দমন বিভাগে এ সংক্রানত্ম অভিযোগকারী ও জেলা আওয়ামী লীগের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক ফারম্নক হোসেন জানান, খাগডহর কেন্দ্রীয় খাদ্য গুদামের (সিএসডি) ৪৫, ৪৬ ও ৫৩ নং গুদামে দীর্ঘদিন ধরে একটি সিন্ডিকেট চক্র খাওয়ার অযোগ্য ৩০০ টন চাল ক্রয় করে মজুত করে রাখার অভিযোগ পান। সরকারের চাল ক্রয় নীতির আওতায় ওই চাল পুনরায় গুদামে বৈধভাবে রাখার গোপন সংবাদ পেয়ে গত ২৮ জুন দুপুরে জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এহতেশামূল আলম, অ্যাডভোকেট মোয়াজ্জেম হেসেন বাবুল, শওকত উসমান লিটন ও জেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক রকিবুল ইসলাম রাকিব খাগডহর সিএসডি পরিদর্শনে যান। এসময় গুদামের ম্যানেজার সানোয়ার হোসেন গুদামে খাওয়ার অযোগ্য ৩০০ টন চাল রক্ষিত আছে বলে স্বীকার করেন আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দের কাছে। একটি প্রভাবশালী মহলের চাপে ওই চাল রাখা হয়েছে বলে আ.লীগ নেতৃবৃন্দের কাছে গুদাম ম্যানেজার স্বীকার করেন।
এ ব্যাপারে গুদামের ম্যানেজার সানোয়ার হোসেন এই প্রতিবেদকে জানান, তার গুদামে কোনো অতিরিক্ত বা পচা চাল নেই। একই কথা বলেন, জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মাহবুবুর রহমান। তিনি বলেন, ৩০ জুন পর্যন- খুবই ব্যসত্ম। এরপর এ বিষয়ে খতিয়ে দেখা হবে বলে জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক জানান।
সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করে সিন্ডিকেট চক্র যাতে সরকারী গুদামে পচা চাল রাখতে না পারে সে লক্ষ্যে জেলা আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ সোমবার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ কাছে এ সংক্রানত্ম প্রথমে মৌখিক অভিযোগ করে এবং পরে জেলা প্রশাসক এবং দুর্নীতি দমন বিভাগে লিখিত অভিযোগ করেন। এ ব্যাপারে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ বলেন, নিয়মিত বৈধ চালান ছাড়া গুদাম থেকে যাতে কোনো চাল বাইরে না যায় সে ব্যাপারে প্রয়োজনীয় নির্দেশ দেন জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রককে। ##

সর্বশেষ আপডেটঃ ৯:৩৩ অপরাহ্ণ | জুন ২৯, ২০১৫