| রাত ৯:৫৮ - শনিবার - ৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ৮ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

তারাকান্দায় সংখ্যালঘু ইস্যু করে প্রতিপক্ষের জমি দখলের চেষ্টা

 

তারাকান্দা প্রতিনিধি: ২০ জুন ২০১৫, শনিবার:

ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলার ঢাকুয়া ইউনিয়নের হরিয়াগাই বাজারে একখন্ডজমি নিয়ে মতিলাল রবিদাস গং দের সহিত সুরুজ আলীগংদের বিরোধ কেন্দ্র করে এলাকায় ব্যাপক তোলপাড় চলছে। যে কোন সময় বড় ধরণের দাঙ্গা-হাঙ্গামার আশংকা করছে স্থানীয়রা। জানা গেছে, উপজেলার হরিয়াগাই মৌজাস’ সাবেক ৮৬৮, হাল ২২৬৪ দাগে জয়নাল আবেদীন ও সুরুজ আলীগংদের ৫ শতাংশ জমি রয়েছে। প্রতিপক্ষ মতিলাল রবিদাস সংখ্যালঘু ইস্যু করে স্থানীয় একটি বিশেষ মহলের ইন্দনে সুরুজ আলীগংদের ভোগ দখলীয় ভূমি জবরদখলের চেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা গেছে, সুরুজ আলীগং ও মতিলালগংদের মাঝে জমাজমি নিয়ে সৃষ্ট বিরোধ মিমাংসার লক্ষ্যে স্থানীয় বাজারে একাধিক গ্রাম্য শালিস দরবার হয়। দরবারে কাগজপত্র পর্যালোচনা করে সুরুজ আলীর পক্ষ্যে রায় দেয় কিন’ মতিলাল রবিদাস গ্রাম্য শালিস দরবারের রায় না মেনে বিভিন্ন দপ্তরে সংখ্যালঘু ইস্যু করে বিভিন্ন মিথ্যা অভিযোগ করে সুরুজ আলীগংদের হয়রানী করছে। সুরুজ আলীর দখলীয় ভূমি বেদখল করতে গিয়ে উভয় পক্ষে ৫ জন আহতের ঘটনাও ঘটে। সুরুজ আলী জানান, তার ভোগদখলীয় ৫ শতাংশ ভূমি হরিয়াগাই বাজারে ব্যবসা-বাণিজ্য রয়েছে। যে কোন সময় প্রতিপক্ষ মতিলাল রবিদাস ভাড়াটিয়া গুন্ডাসহ হামলা করিতে পারে। তিনি আদালতে ১৪৪ ধারা আবেদন করেছেন এবং পুলিশ আদালতের নির্দেশে ১৪৪ ধারা জারি করে। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মেজবাহ উদ্দিন মন্ডল, ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি মজিবর রহমান ফকির, তারাকান্দা উপজেলা হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি প্রদীপ কুমার চক্রবর্তী জানান, একাধিক দরবারে তাহারা উপসি’ত ছিলেন, কাগজপত্র পর্যালোচনা করে দেখা যায় উক্ত ভূমির বৈধ মালিক জয়নাল আবেদীন ও সুরুজ আলীগং। এখানে মতিলাল রবিদাসের দলিল থাকলেও ৫ শতাংশ ভূমির বৈধতা নেই। তাই বিষয়টি আলাপ আলোচনার মাধ্যমে ফয়সালার চেষ্টা করি কিন’ প্রতিপক্ষ মতিলাল রবিদাসগং স্থানীয় ভাবে বিষয়টি না মেনে বিভিন্ন জায়গায় ছুটাছুটি করছে। সুরুজ আলী এ বিষয়ে প্রশাসনের জরুরী হস-ক্ষেপ কামনা করছে।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:৩২ অপরাহ্ণ | জুন ২০, ২০১৫