| রাত ১:৪৪ - সোমবার - ৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ৯ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

মৌলিক স্বাক্ষরতা প্রকল্পে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ ১৬ এনজিও’র তদন্ত দাবী

ত্রিশাল ব্যুরো অফিস, ১৮ জুন ২০১৫, বৃহস্পতিবার:
প্রাথমিক ও গণ শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের অধীনস্থ উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর আওতাধীন মৌলিক স্বাক্ষরতা প্রকল্প (৬৪ জেলা) বাস্তবায়নের জন্য জেলা প্রশাসক ময়মনসিংহ ও সভাপতি জেলা এনজিও নির্বাচন কমিটি মৌলিক স্বাক্ষরতা প্রকল্পের নিকট আবেদন করেন স্থানীয় এনজিওরা। এ প্রকল্পের সদস্য সচিব জেলা উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো ময়মনসিংহের রাশেদা ইয়াছমিনের বিরম্নদ্ধে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ করেছেন স্থানীয় ১৬টি এনজিও সংগঠন।   অভিযোগে জানাযায়, এ প্রকল্পে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করে ময়মনসিংহ জেলার ৬টি উপজেলায় স্থানীয় পর্যায়ে ৮২টি এনজিও তাদের আগ্রহপত্র () জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদ করেন।
এনজিও সমূহ বাছাই/ মূল্যায়ন সংক্রানত্ম জেলা এনজিও নির্বাচন কমিটির সভাপতি হিসেবে ৬টি উপজেলার ১৪টি এনজিওকে প্রাথমিক ভাবে নির্র্বাচন করে অনুমোদন দিয়েছেন জেলা প্রশাসক।  যার মধ্যে থেকে ২/৪টি এনজিও যোগ্যতার ভিত্তিতে আসলেও কতিপয় এনজিও প্রতিনিধির সাথে আতাত করে দুর্নীতির মাধ্যমে কমিটির সদস্য সচিব ও সহকারী পরিচালক রাশেদা ইয়াছমিন ভূয়া কাগজপত্র তৈরী এবং মূল্যায়ন কওে কয়েকটি এনজিওকে প্রাথমিক নির্বাচনের তালিকায় রেখেছেন। ফলে অনেক যোগ্য এনজিও প্রাথমিক নির্বাচনের তালিকা থেকে বাদ পড়ায় জেলার ১৬টি এনজিও’র প্রতিনিধিদের স্বাক্ষরিত একটি অভিযোগ জেলা প্রাশসাক বরাবর আবেদন করা হয়েছে।

এনজিও প্রতিনিধিরা জানান, প্রকৃত যোগ্যতার আলোকে প্রকল্পের দায়িত্ব যে কেউ পেতে পারেন কিন’ দুর্নীতির মাধ্যমে ভূয়া কাগজ তৈরী করে তাদের প্রকল্প দেওয়া হলে কোন এনজিও মেনে নিবেন না। বিষয়টি তদনত্ম পূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য জেলা প্রশাসকের দৃষ্টি কামনা করেন।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৬:০০ অপরাহ্ণ | জুন ১৮, ২০১৫