| ভোর ৫:৪৩ - মঙ্গলবার - ২রা আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ১৮ই শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ৩রা মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

মা-ছেলে মিলে বিদ্যুৎ খাইছে গিলে —ডা. ক্যাপ্টেন (অব.) মজিবুর রহমান ফকির এমপি

সাজ্জাতুল ইসলাম সাজ্জাত : ১৩ জুন ২০১৫, শনিবার,
সাবেক স্বাস’্য প্রতিমন্ত্রী ও গৌরীপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব ডা, ক্যাপ্টেন (অব.) মজিবুর রহমান ফকির এমপি বলেছেন, মা-ছেলে মিলে বিদ্যুৎ খাইছে গিলে। খালেদা জিয়া ৰমতায় থাকলে বিদ্যুৎ কমে আর শেখ হাসিনা ৰমতায় থাকলে দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদন বাড়ে।
গতকাল শনিবার গৌরীপুর উপজেলার সহনাটি ইউনিয়নের সাড়ে তিন কিলোমিটার লাইনের বিদ্যুৎ সংযোগের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি আরো বলেন, বাজেটে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে যে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে তাতে আগামী তিন বছরের মধ্যে এ সেক্টরে উলেস্নখযোগ্য সাফল্য আসবে। দেশের চলমান বিদ্যুতের চাহিদা মিটিয়ে নতুন নতুন এলাকাকে বিদ্যুতের আওতায় আনতে সরকার যে উদ্যোগ নিয়েছে তা এবারের বাজেটেই (২০১৪-১৫ অর্থবছর) প্রতিফলন দেখা গেছে। যা আগামীতেও (২০১৫-১৬ অর্থবছর) অব্যাহত থাকবে।
বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়াকে আগুন সন্ত্রাসীদের জন্মদাতা আখ্যায়িত করে বলেন, তিনি জঙ্গিমাতা। তাকে রাজনৈতিক ময়দান থেকে বিদায় করতে হবে। আগুন সন্ত্রাসের কারিগর খালেদা নেতৃত্বে থাকলে আগুন সন্ত্রাসীদের পুনরায় উত্থান ঘটবে। তার হাতে বাংলাদেশের মানুষ নিরাপদ নয়। খালেদা জিয়া পেট্রোল বোমা দিয়ে মানুষ হত্যা করে। ১৫২ জনকে খালেদা জিয়া পেট্রোল বোমা মেরে বোমা নেত্রী হয়েছেন। বঙ্গবন্ধু হত্যাকারীদের মতো তার বিচার করা হবে। ২০ দলর বিষ দাতঁ ভেঙ্গে দেয়ায় বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া এখন পালানোর পথ পাচ্ছেন না। তিনি এখন দিশেহারা হয়ে গেছেন। শেখ হাসিনার সফল নেতৃত্বের কাছে ২০ দলের আন্দোলন ব্যর্থ। আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে ২০ দলের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া এখন নিসৱব্ধ ও চুপ হয়ে তিনি পালানোর পথ খুজঁছেন। তিনি বুঝতে পেরেছেন সন্ত্রাস করে ও পেট্রোল বোমা মেরে আন্দোলন সফল করা যায় না। ৯২ দিন ডিমে তা দিয়ে খালেদা জিয়া বাচ্চা ফুটাতে পারেননি।
এসময় আরো বক্তব্য রাখন, পলস্নী বিদ্যুৎ সমিতি ময়মনসংি-৩ এর পরিচালক রতন সরকার, জিএম এ.কে.এম.এইচ রেজাউল খান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিধূ ভুষণ দাস, সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম ফকির দীপু, উপজেলা জাপার সভাপতি শামছুজ্জামান (জামাল), পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্নসাধারণ সম্পাদক মনিরম্নজ্জামান বিপস্নব, সহনাটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি রম্নহি দাস আচার্য্য, সাধারণ সম্পাদক মোশারফ হোসেন, আওয়ামী লীগ নেতা সোমনাথ সাহা, ছাত্রলীগ নেতা উমর ফারম্নক, মেহেদী হাসান মিতুন, শাহাবুল আলম প্রমুখ।

সর্বশেষ আপডেটঃ ১০:৫৮ অপরাহ্ণ | জুন ১৩, ২০১৫