| রাত ৯:১৮ - শনিবার - ৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ৮ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

ম্যাগি নিষিদ্ধ, অমিতাভ মাধুরী ও প্রীতির বিরুদ্ধে মামলার নির্দেশ


অনলাইন ডেস্ক,  ৩ জুন ২০১৫, বুধবার, ৬:১২

বহুজাতিক সংস্থা নেসলের ম্যাগি নুডলস্ বিতর্কে গোটা ভারত তোলপাড়। নাম জড়িয়েছে এই দু মিনিটের চটজলদি খাবারের ব্র্যান্ড আম্বাসাডর অমিতাভ বচ্চন, মাধুরী দিক্ষীত ও প্রীতি জিনতার। তাদের বিরুদ্ধে আদালত পুলিশকে এফআইআর দায়ের করতে নির্দেশ দিয়েছে। প্রয়োজনে তাদের গ্রেপ্তার করতেও বলা হয়েছে। আর এই বিতর্কেও মধ্যে ভারত সরকার নিষিদ্ধ ঘোষণা করছে ম্যাগি নুডলসকে। বুধবার কেন্দ্রীয় সরকার বিজ্ঞপ্তি জারি করে সরকারি বিপণন গুলিতে ম্যাগির বিক্রয় বন্ধ করে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে। ম্যাগি কাণ্ডে উত্তরাখণ্ড, উত্তরপ্রদেশ ও কেরলার পর সক্রিয় ভূমিকা নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। এই বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, সরকারি ভাণ্ডার থেকে শুরু করে কেন্দ্রীয় সরকারের বিক্রয় এবং রেলওয়ে ষ্টেশনে পাওয়া যাবে না ম্যাগি। সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের খাদ্য দপ্তরের তদন্তে জানা যায়, ম্যাগির মধ্যে অতিরিক্ত মাত্রায় মনোসোডিয়াম গ্লুটামেট (এমএসজি বা আজিনামোতো) এবং সিসা রয়েছে। তার পর থেকেই ম্যাগি নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক। অতি মাত্রায় আজিনামোতো শরীরে অ্যালার্জির মতো প্রতিক্রিয়া ঘটায়। খাদ্যনালীর দেওয়াল ক্ষয়ে যায়। শরীরের ক্যানসার সৃষ্টিকারী সুপ্ত কোষগুলিকে জাগিয়ে তোলে। দিল্লি সরকারও জানিয়েছে, তাদের পরীক্ষাতেও ম্যাগির মধ্যে অতিরিক্ত সিসা মিলেছে। কেরলা সরকারও তাদের রাজ্যের সমস্ত দোকান-বাজার থেকে ম্যাগির প্যাকেট সরিয়ে নেয়ার নির্দেশ দিয়েছে। পশ্চিমবঙ্গ থেকেও গুণমান নির্ণয়ের জন্য ম্যাগির নমুনা পাঠানো হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের পরীক্ষাগারে। ‘ক্ষতিকারক’ ম্যাগি বিক্রির অভিযোগে ‘নেস্লে ইন্ডিয়া’ সংস্থার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দিল্লি সরকার। নেস্লে অবশ্য প্রথম থেকেই দাবি করছে, ম্যাগিতে সিসা বা আজিনামোতো কখনওই অনুমোদিত মাত্রার চেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয়নি। ভারতের কেন্দ্রীয় খাদ্য নিরাপত্তা নিয়ন্ত্রক সংস্থা ‘ফুড সেফটি অ্যান্ড স্ট্যান্ডার্ডস অথরিটি অব ইন্ডিয়া’ (এফএসএসএআই) বিভিন্ন রাজ্য থেকে পাওয়া ম্যাগির নমুনা পরীক্ষা করছে। তাদের রিপোর্ট আসতে আর হয়তো দু’এক দিন লাগবে। নেস্লের বক্তব্য, তারাও ওই রিপোর্টের জন্য অপেক্ষা করছে। ইতিমধ্যে ম্যাগির নিজস্ব ওয়েবসাইটে এখন এই বিষয়ে নানা প্রশ্নের উত্তর দিয়ে ক্রেতাদের ধরে রাখার চেষ্টা করছে সংস্থা। রাজ্যে রাজ্যে ম্যাগির নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। এই নুডল্স নিয়ে আপত্তি ওঠায় নিরাপত্তার স্বার্থে কেরল সরকার তাদের রাজ্যে ম্যাগি বিক্রি নিষিদ্ধ করেছে। সরকারি, বেসরকারি সব ধরনের দোকান থেকেই এই চটজলদি নুডল্সের প্যাকেট সরিয়ে নেয়ার নির্দেশ দিয়েছে কেরলা সরকার। হরিয়ানার স্বাস্থ্যমন্ত্রী অনিল ভিজও জানিয়েছেন, ম্যাগির নমুনা পরীক্ষা করে যদি দেখা যায় খাদ্যের মানের সঙ্গে আপস করা হয়েছে, তা হলে তারাও রাজ্য থেকে এই পণ্য সরিয়ে নেবেন। এদিকে ফরচুন গ্র“প পরিচালিত বিগবাজার-এর বিপনীগুলিতে ম্যাগি নুডলস্ বিক্রি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। নেসলেকে সমস্ত স্টক ফিরিয়ে দেয়া হচ্ছে বলে জানানো হয়েছে।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:৫৪ অপরাহ্ণ | জুন ০৩, ২০১৫