| সন্ধ্যা ৭:৪৮ - বৃহস্পতিবার - ৪ঠা আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ২০শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ৫ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

মৌসুমের দ্বিতীয় শিরোপা বার্সার ঘরে

অন লাইন ডেস্ক,৩১ মে ২০১৫, রবিবার:

লিওনেল মেসির অসাধারণ নৈপুণ্যে অ্যাতলেটিক বিলবাওকে ৩-১ গোলে হারিয়ে কোপা দেল রে’র শিরোপা জিতলো বার্সেলোনা। ক্যাম্প ন্যু’তে কাতালানদের রেকর্ড ২৭তম এ শিরোপা জয়ে মেসির জোড়া গোলের পাশাপাশি একটি গোল করেন নেইমার।

ইতোমধ্যে লা লিগা জেতা বার্সার শনিবার রাতে জয় লুইস এনরিক শিষ্যদের ঘরোয়া বড় দুটি শিরোপা এনে দেয়। এবার স্প্যানিশ এ জায়ান্ট দলটি আগামী ৬ জুন বার্লিনে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে জুভেন্টাসের বিপক্ষে জয় পেলেই ট্রেবল জয় নিশ্চিত করবে।

বিলবাও এদিন অনেকটা প্রতিশোধের ম্যাচে বার্সার বিপক্ষে নামে। কারণ ২০০৯ ও ২০১২ কোপা ফাইনালে কাতালানদের কাছে হেরেই শিরোপা বঞ্চিত হতে হয় সফরকারীদের। তবে ম্যাচের ২০ মিনিটে আর্জেন্টাইন অধিনায়ক মেসির এ মৌসুমে ৫৭তম গোল সবকিছুকেই ছাপিয়ে যায়।

ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার দানি আলভেজ বল বাড়িয়ে দিলে একক দক্ষতায় চারজনকে কাটিয়ে বাঁ পায়ের দারুণ শটে দলের হয়ে লিড নেন মেসি। সেই সঙ্গে পুরো ক্যাম্প ন্যু কেঁপে ওঠে সমর্থকদের গর্জনে।

বিলবাওয়ের জালে আক্রমণ করতে থাকা বার্সা ১৬ মিনিট পরেই লিড বাড়ায়। সম্মিলিত আক্রমণে ইভান রাকিটিচ থেকে বল পেয়ে ডানপ্রান্ত দিয়ে গোলবারের সামনেই পৌঁছে যান লুইস সুয়ারেজ। তবে শেষ মুহূর্তে একেবারে বাঁ দিকে থাকা নেইমারের দিকে বল বাড়িয়ে দিলে পায়ের আলতো টোকায় মৌসুমের ৩৮তম গোল পূর্ণ করেন ব্রাজিলিয়ান এ স্ট্রাইকার।

বিরতির আগে বার্সার আরো কয়েকটি আক্রমণ হলেও তা থেকে কোন গোল না হওয়া ২-০ গোলের লিড নিয়ে বিরতিতে যায় স্বাগতিকরা।

বিরতির পর আবারো সেই পুরনো রুপে বার্সা। দলের তিন সেরা স্ট্রাইকার সহ সব ফুটবলাররা ব্যস্ত রাখেন প্রতিপক্ষ দলের ডিফেন্ডারদের। এরই সুবাদে ম্যাচের ৭৪ মিনিটে ডানপ্রান্ত দিয়ে সজোড়ে বল নিয়ে এগিয়ে যান আলভেজ। আর শেষ মুহূর্তে গোলবারের সামনে থাকা মেসির দিকে বল এগিয়ে দিলে তা থেকে গোল করতে ভুল করেন নি চারবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী এ তারকা।

এ গোলটিই মূলত বার্সার জয় পুরোপুরি নিশ্চিত করে দেয়। তবে খেলার নির্ধারিত সময়ের ১১ মিনিট আগে ইবাই গোমেজের অ্যাসিস্ট থেকে গোলনাকি উইলিয়ামস বিলবাওয়ের হয়ে একটি গোল করলে শুধুমাত্র ব্যবধান কমাতে পারে দলটি।

খেল‍ার বাকি সময় আর কোন গোল না হলে শেষ পর্যন্ত ৩-১ গোলের জয় নিয়ে ‍শিরোপা উদযাপন করে বার্সা। এদিকে এ ম্যাচটি বার্সার হয়ে ১৭ বছরের ক্যারিয়ারের শেষ ঘরোয়া ম্যাচ খেললো মিডফিল্ডার জাভি হার্নান্দেজ। আগামী মৌসুমে তিনি কাতারের একটি ক্লাবের হয়ে খেলবেন।

সর্বশেষ আপডেটঃ ৪:৪৩ অপরাহ্ণ | মে ৩১, ২০১৫