| রাত ৮:০৯ - বৃহস্পতিবার - ২৪শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ - ৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ - ২৯শে রবিউস সানি, ১৪৪৪ হিজরি

মোবাইলে প্রেম, প্রথম সাক্ষাতেই ধর্ষণ

মংলা থেকে সংবাদদাতা | ৫ মে ২০১৫, মঙ্গলবার,

মোবাইলে প্রেম, অতপর প্রথম ডেটিংয়েই ধর্ষণের শিকার হয়েছে রামপালের এক কিশোরী। ধর্ষক প্রেমিকসহ অপর এক যুবককে আটক করেছে মংলা থানা পুলিশ। তারা হচ্ছেন, বাগেরহাটের রামপাল উপজেলার ভরসাপুর এলাকার মো. শহিদ শেখের পুত্র মো ফয়সাল (২১) এবং একই উপজেলার তুলশিরাবাদ এলাকার মৃত  মজিদের পুত্র আ. রহিম (২৪)। মঙ্গলবার তাদেরকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। মংলা থানার এসআই বিশ্বজিত মুখার্জি জানান, বাগেরহাটের রামপাল উপজেলার ভরসাপুর এলাকার হাশেম শেখের কন্যা (১৬) এর সঙ্গে গত মাস তিনেক আগে মোবাইল ফোনে পরিচয় ঘটে একই গ্রামের শহিদ শেখের পুত্র মো ফয়সালের (২১)। ওই কিশোরী তার পরিচয় প্রকাশ করলেও নিজের পরিচয় গোপন রাখে সুচতুর ফয়সাল। পরিচয়ের সূত্র ধরে দু’জনের মধ্যে গড়ে ওঠে প্রেমের সম্পর্ক। এক পর্যায়ে মুখোমুখি দেখা করার জন্য দু’জনেই ব্যকুল হয়ে ওঠে। দিনক্ষণ ঠিক করে দু’জনেই প্রথম সাক্ষাতের জন্য গত সোমবার বিকেলে তারা মিলিত হয় মংলা আবহাওয়া অফিসের পাশের একটি আম বাগানে। সেখানে কিছুক্ষণ মধুরতম সময় কাটায় প্রেমিক জুটি। সন্ধ্যার দিকে প্রেমিক রূপি লম্পট ফয়সাল ঝাপিয়ে পড়ে ওই কিশোরীর উপর। তাকে ধর্ষণ করে ফয়সাল। এ সময় দূরে দাড়িয়ে ফয়সালকে পাহারা দিচ্ছিল তার অপর এক বন্ধু রহিম। মংলা থানার টহল পুলিশ বিষয়টি টের পেয়ে সোমবার রাতে ওই তিন জনকে ঘটনাস্থল থেকেই আটক করে থানায় নিয়ে আসে। পরে পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে ধর্ষণের কথা স্বীকার করে ফয়সাল। ধর্ষিত কিশোরী বাদি হয়ে সোমবার রাতে মংলা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছে। ধর্ষিতাকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য আজ মঙ্গলবার বাগেরহাট প্রেরণ করা হয়েছে।

 

সর্বশেষ আপডেটঃ ৮:৪৫ অপরাহ্ণ | মে ০৫, ২০১৫